শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮, ৮ আষাঢ় ১৪২৫
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

গৌরবের ৩৮ বছরে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়

ডেস্ক রিপোর্ট | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2016-11-21 00:00:00

২২ নভেম্বর (সোমবার) ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৮তম প্রতিষ্ঠা দিবস। ১৯৭৯ সালের এই দিনে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহের মধ্যবর্তী শান্তিডাঙ্গা-দুলালপুরের নিভৃত মায়াঘেরা পরিবেশে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপিত হয়।

প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান প্রতিষ্ঠা করেন স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম এই পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়। ২ টি অনুষদের অধীনে ৪ টি বিভাগে ৮জন শিক্ষক ৩’শ ছাত্র নিয়ে যাত্রা শুরু করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়। হাটিহাটি পা পা করে আজ বিশ্ববিদ্যালয়টি ৫টি অনুষদের অধীন ২৫ টি বিভাগ নিয়ে সমহিমায় উদ্ভাসিত। প্রায় চারশ শিক্ষক, পাঁচ শতাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারী কর্মরত রয়েছে। এছাড়া অধ্যয়ণরত রয়েছে প্রায় ১৬ হাজার ছাত্র-ছাত্রী। উচ্চতর গবেষণায় বেশ এগিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়টি।

প্রতিষ্ঠার ৩৭ বছরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভৌত অবকাঠামোর ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। ১৭৫ একর জমির উপর প্রতিষ্ঠিত এ বিশ্ববিদ্যালয় একাডেমিকভাবে উচ্চ শিক্ষা বিস্তারে বরাবরই সুনাম অক্ষুন্ন রেখে চলেছে। বর্তমানে ছাত্র ছাত্রীদের পৃথক ৮টি আবাসিক হল রয়েছে (একটি নির্মাণাধীন)। সাংস্কৃতিক চর্চা, চিত্ত-বিনোদনের জন্য স্থাপন করা হয়েছে ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র (টিএসসিসি)।

১২শ আসনের শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত অডিটরিয়ামটির নাম বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তন। শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে সমৃদ্ধশালী লাইব্রেরী। বিশ্ববিদ্যালয়ে রয়েছে মেডিকেল সেন্টার, ব্যায়ামগার, ফুটবল ও ক্রিকেটের জন্য আলাদা মাঠ। ক্যাম্পাস ভিত্তিক সর্ববৃহৎ শহীদ মিনার এই ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থিত। এছাড়া ক্যাম্পাসের সৌন্দর্যে পূর্ণতা দিয়েছে মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মারক ভাস্কর্য মুক্তবাংলা ও স্বাধীনতার স্মৃতিস্তম্ভ স্মৃতিসৌধ

 

 

 

ঢাকা/ এইচ আর