মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারী ২০১৮, ১০ মাঘ ১৪২৪
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

চবিতে অনলাইন টেন্ডার প্রক্রিয়া শুরু

বাইজিদ ইমন | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2016-12-29 22:48:19

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সনাতন প্রক্রিয়ার পরিবর্তে অনলাইন ভিত্তিক টেন্ডার পদ্ধতি চালু করেছে কর্তৃপক্ষ। গত ২৭ নভেম্বর বার্ষিক উন্নয়ন পরিকল্পনার তিনটি প্রকল্পের তথ্য অনলাইনে সংযোজনের মাধ্যমে অনলাইনভিত্তিক টেন্ডারের প্রক্রিয়া শুরু করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষা মন্ত্রণালয় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামো উন্নয়ন করতে ৫১ কোটি ৮৯ লাখ ৯৭ হাজার টাকার তিনটি প্রকল্প অনুমোদন দেয়। এ তিনটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে জানুয়ারি মাসে ই-টেন্ডার পদ্ধতি চালু করবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

প্রকল্প তিনটি হলো- বঙ্গবন্ধু হলের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ, আবাসিক শিক্ষকদের ভবণ নির্মাণের কাজ, জীববিজ্ঞান অনুষদের চতুর্থ ও চূড়ান্ত পর্যায়ের র্নিমাণকাজ। এসব কাজের মধ্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজের প্রকৌশল দপ্তর নির্ধারিত নির্মাণ ব্যয় ২৪ কোটি ৮৫ লক্ষ ৩৯ হাজার ৬৩২ টাকা, জীববিজ্ঞান অনুষদের চতুর্থ দফা বর্ধিত অংশের ২২ কোটি ৮২ লক্ষ ১০ হাজার ৮১৬ টাকা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের জন্য পাঁচ তলাবিশিষ্ট প্রভোস্ট ও হাউস টিউটর ডরমেটরির জন্য ৪ কোটি ২২ লক্ষ ৪৭ হাজার ৪৬৮ টাকা নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী আবু সাঈদ হোসেন বলেন, ‘গত ২৭ নভেম্বর থেকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ই-টেন্ডার পদ্ধতিতে টেন্ডার প্রক্রিয়ার প্রস’তি গ্রহণ করা হয়েছে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই তিনটি উন্নয়ন প্রকল্পের কাজের সিডিউল বিক্রয়ের জন্য অনলাইনে বিজ্ঞাপন যাবে এবং একই সাথে পত্রিকায়ও বিজ্ঞাপন দেওয়া হবে।’
বিশ্ববিদ্যালয় প্রকৌশল অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয় প্রকৌশল অধিদফতরের পাঁচ প্রকৌশলীকে ই-টেন্ডার পদ্ধতির উপর প্রশিক্ষণের জন্য পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালায় পাঠানো হচ্ছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের অংশ হিসেবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রথমবারের মতো ই-টেন্ডার পদ্ধতিতে উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ শুরু করেছে। এর মাধ্যমে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠার নতুন দ্বার উন্মোচিত হবে। জানুয়ারি মাসেই তিনটি প্রকল্পের কাজ ই-টেন্ডার পদ্ধতিতে সম্পন্ন করা হবে।’
উল্লেখ্য, সম্প্রতি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবাইদুল কাদের চট্টগ্রাম সফরে এসে চবি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে উপাচার্যের সাথে কথা বলেন। এ সময় তিনি উপাচার্যকে ই-টেন্ডার চালু করার তাগিদ দেন। এছাড়া ক্যাম্পাসের সার্বিক পরিবেশ সুষ্ঠু রাখতে সর্তক করে যান। (সুপ্রভাত বাংলাদেশ)

 

 

ঢাকা/ এইচ আর