শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮, ৭ আষাঢ় ১৪২৫
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

বয়সের ছাপ লুকাতে পালংশাক

হাসিনা আকতার | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2017-01-04 12:20:40

বয়সের ছাপ লুকানোর জন্য আমরা কত কিছুই না করি। অথচ পালংশাকের অ্যান্টি–অক্সিডেন্ট কোষের ক্ষয় রোধ করে শরীরকে তারুণ্যদীপ্ত এবং সুস্থ-সবল রাখে। ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়ায়। মস্তিষ্কের কোষগুলোকেও সতেজ এবং কর্মক্ষম রাখে। পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতাও রয়েছে এই শাকের।

প্রতি ১০০ গ্রাম পালংশাকে রয়েছে ৯০ দশমিক গ্রাম পানি, দশমিক গ্রাম খনিজ লবণ, শূন্য দশমিক গ্রাম আঁশ, ৩০ কিলোক্যালরি খাদ্যশক্তি, দশমিক গ্রাম আমিষ, দশমিক গ্রাম শর্করা, ৭৯ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, দশমিক মিলিগ্রাম লোহা, হাজার ৯৪০ মাইক্রোগ্রাম ভিটামিন ১৫ মিলিগ্রাম ভিটামিন-সি।

এক কাপ পালংশাক খাদ্যআঁশের দৈনিক চাহিদার ২০ শতাংশ পূরণ করে। ভিটামিন- এবং কে-এর দৈনিক চাহিদা মেটায়। এতে উচ্চমাত্রার আমিষ, ভিটামিনসি, ভিটামিন-, লোহা, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, জিংক, ফলিক অ্যাসিড সেলেনিয়াম রয়েছে। এসব পুষ্টি উপাদান শরীরের স্বাভাবিক কাজকর্মের জন্য অপরিহার্য।

বয়সের ছাপ কমানোর পাশাপাশি পালংশাক শরীরকে নানাভাবে সুরক্ষা দেয়। এক নজরে এর উপকারিতাগুলো দেখে নেওয়া যাক।

রক্তচাপ কমায়
উচ্চমাত্রার ম্যাগনেশিয়াম থাকার কারণে পালংশাক রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়
এই সবজিতে থাকা ভিটামিন- শরীরের রোগ প্রতিরোধী রক্তকণিকা শ্বেতকণিকা বাড়ায় এবং দেহকে বিভিন্ন সংক্রমণ রোগ থেকে রক্ষা করে।

ক্যানসারের প্রতিরোধ
পালংশাকে রয়েছে ১০টিরও বেশি ভিন্ন ধরনের ফ্ল্যাভোনয়েড, যা জটিল রোগের বিরুদ্ধে কাজ করে। বিশেষ করে দেহের ক্ষতিকর মুক্তকণিকা (ফ্রি র্যা ডিকেল) নিষ্ক্রিয় করে ক্যানসার ঠেকায়।

চোখের সুরক্ষায়
পালংশাকে লুটেনসহ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ফাইটোকেমিক্যাল থাকে, যা দৃষ্টিশক্তির ক্ষতি বেড়ে যাওয়ার প্রবণতা বন্ধ করতে সাহায্য করে। পালংশাকের বিটা ক্যারোটিন চোখে ছানি পড়ার ঝুঁকি কমায়।

ত্বকের সুরক্ষায়
পালংশাকে থাকা ভিটামিন- ত্বকের বাইরের স্তরের আর্দ্রতা বজায় রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এটা বিভিন্ন ধরনের ত্বকের সমস্যা যেমন ব্রণ বলিরেখা কমায়।

শরীর সজীব রাখতে
পালংশাকে রয়েছে উচ্চমাত্রার লোহা, যা দেহে অক্সিজেন উৎপাদনের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। ছাড়া এতে রয়েছে লিম্ফোবিক অ্যাসিড, যা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যেমন ভিটামিন সি কে পুনরুজ্জীবিত করতে সাহায্য করে। কারণে পালংশাক ক্লান্তি ভাব দূর করে।

প্রদাহ কমাতে
পালংশাকে আছে নিওজেন্থিন, যা প্রদাহ নিরাময়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। যাঁদের অস্থিসন্ধিতে ব্যথা আছে তাঁরা অবশ্যই প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় এটি রাখলে উপকার পাবেন।

হৃদ্যন্ত্রের সুরক্ষায়
এই সবজিতে থাকা ফলিক অ্যাসিড হৃদ্যন্ত্র সুস্থ রাখে। তাই আমাদের সবার উচিত উপকারী সস্তা সবজিটি খাদ্যতালিকায় নিয়মিতভাবে রাখা

 

লেখক: প্রধান পুষ্টিবিদ
চট্টগ্রাম ডায়াবেটিক জেনারেল হাসপাতাল