মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৮, ১১ বৈশাখ ১৪২৫
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

পরকীয়ায় সখ্যতা নয়, নৈতিকতার বিষয়ে সজাগ থাকা দরকার

আবদুল কাইয়ূম | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2017-03-25 23:23:36

অনেক আশা ভরসা নিয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন মেধাবী শিক্ষার্থীরা।১ম বর্ষে শুরু করতেই মাথায় ঢুকে বিশাল চিন্তা। কারো হতে হবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কারো আবার বিসিএস পরীক্ষায় সফলতা। সাথে সাথে একটু ইনকামের চিন্তা। তাইতো টিউশনি খোঁজ করে ক্যাম্পাসের আশেপাশে এলাকা এবং বন্দর নগরী জুড়ে।

টিউশনি করতে গিয়ে ছাত্রীর সাথে বা কোন প্রবাসী স্বামীর স্ত্রীর সাথে গড়ে ওঠে সখ্যতা।
এমনি দুইটি ঘটনার শিকার হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্র। বাংলা বিভাগের স্নাতকোত্তরে পড়ুয়া শিক্ষার্থী আলাউদ্দিন। সে খুন হয় ত্রিভূজ প্রেমের কাহিনীতে ! এদিকে পুলিশ তার হত্যার রহস্য খুনিদের ধরতে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

তার এই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে আরেক শিক্ষার্থী অপহরণের অভিযোগ ওঠেছে। সে চবির ব্যবস্থাপনা বিভাগের ২০১০-১১ সেশনের শিক্ষার্থী। তার নাম নুরুল্লাহ রনি। সেও চৌধুরাহাটে একটি ভাড়া বাসায় থাকতো। সেখানে তার সাথে এক প্রবাসী স্বামীর স্ত্রীর সাথে বহু দিনের সম্পর্ক আছে বলে জানিয়েছে তার ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা। আর দেশে ফিরে স্বামী নুরুল্লাহকে অপহরণ করেছে বলে অভিযোগ করেছে বন্ধুরা। পুলিশ তার খোঁজ মিলাতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। প্রাকৃতিকভাবেই ছেলের প্রতি মেয়ের এবং মেয়ের প্রতি ছেলের দুর্বলতা থাকে।

মনোবিজ্ঞানীরা বলছেন, কারো সাথে কয়েকদিন কথাবার্তা, চলাফেরা করতে করতে সম্পর্কটা ঘনিষ্ঠ হয়ে যায়। একজন আরেকজনের দুর্বলতা সম্পর্কে অবহিত হয়। ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক চরমে পৌঁছে। তার পরিবার সমাজে জানাজানি হলে কেউ সে পথ থেকে ফিরে আসতে পারে, আবার কেউবা পারে না।
তখন তারা মানসিক বিপদগ্রস্থ হয়ে পড়ে। সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগে। কেউ করে আত্মহত্যা, কেউ হয় হত্যা আবার কেউ মাদক নেশায় আশক্ত।
এসব ব্যাপারে শিক্ষার্থীদের উচিত নৈতিকতার বিষয়ে সজাগ থাকা। অন্যদিকে অভিভাবকদের উচিত সবসময় ছেলেমেয়েদের খোঁজ খবর নেয়া তাদের সাথে পারিবারিক বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করা।

প্রবাসী স্বামীরা প্রবাসে গেলে স্ত্রীর খোঁজ খবর রাখে না। তাদের স্ত্রীর সাথে কোন পারিবারিক দ্বন্দ্ব হচ্ছে কিনা? কোন পরকীয়ায় জড়াচ্ছে কিনা এসব খবরা খবর রাখাটা জরুরি।

স্মাট মুঠোফোনের অপব্যবহার :
মুঠোফোনতো আর হাতের মুঠোয় আটে না! তার তো বিশাল আকার! মোবাইলের অপব্যবহারের কারণে এসব ঘটনা ঘটছে অহরহ। এছাড়া এমন কাহিনীর জন্য টিউশনিতে মেয়েদের দিয়ে পড়াতে আগ্রহ প্রকাশ করেন অভিভাবকরা

 

  লেখক: আবদুল কাইয়ূম

  শিক্ষার্থী ও সাংবাদিক।

   চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।