শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮, ৭ আষাঢ় ১৪২৫
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

শাবিপ্রবিতে ছাত্রী ও সাংবাদিক নির্যাতনকারীদেরকে বহিষ্কারের দাবি

শাবিপ্রবি প্রতিনিধি | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2017-04-17 22:15:16

ছাত্রীকে যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করায় শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের দুই সাংবাদিক নেতার ওপর হামলাকারীদের বিশ্ববিদ্যালয় ও ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ও বর্তমান সাংবাদিকদের সংগঠন শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক ফোরাম।

সোমবার সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ইমাম হাসান মুক্তির সভাপতিত্বে এবং চ্যানেল টুয়েন্টিফোরের ফারুক মেহেদী ও এসএ টিভির মুস্তফা মনওয়ার সুজনের যৌথ পরিচালনায় মানববন্ধনের পর বিক্ষোভ সমাবেশ হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ঐতিহ্যবাহী ছাত্রলীগে এখন অনেক অনুপ্রবেশকারী রয়েছে। যাদেরকে হাইব্রিড ও কাউয়া বলা হয়। এসব অনুবেশকারীরাই সংবাদ কর্মীদের ওপর হামলা করছে। তাদের কর্মকান্ডে সরকারের অভূতপূর্ব সুনাম ও ছাত্রলীগের ঐতিহ্য ম্লান হয়ে যাচ্ছে। সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় শাবি ছাত্রলীগের স্থগিত কমিটির সভাপতি সঞ্জিবন চক্রবর্তী পার্থসহ জড়িত নেতাকর্মীদের সর্বোচ্চ শাস্তির পাশাপশি বিশ্ববিদ্যালয় ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ী বহিষ্কারের দাবি জানানো হয়েছে।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক শাহানা শিউলি, ঢাকাস্থ নোয়াখালী সাংবাদিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান রুবেল, আরটিভির ফারুক খান, শাবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলী আশরাফ কবীর, সমকালের রমাপ্রসাদ বাবু, যুগান্তরের নাঈমুল করীম নাঈম ও আবু তাহের টোটন।

কর্মসূচিতে সংহতি জানান, জাতীয় প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক শাহেদ চৌধুরী, ডিআরইউর সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপু, এনজেএফ’র সহ সভাপতি ফিরোজ আলম মিলন ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি মওদুদ আহেম্মেদ সুজন।

উপস্থিত ছিলেন, শাবি প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সাঈদ আবদুলাহ যীশু, আলোকিত বাংলাদেশের মো. জাহিদুল ইসলাম, বাংলা নিউজের তাহজীব হাসান, যুগান্তরের গাজী সাদেক, শাবি প্রেসক্লাবের বর্তমান সভাপতি জাবেদ ইকবাল ও সাবেক সদস্য সচিব কাজী রাকিন, সাংবাদিক এমইউ শিমুল, শেয়ার বিজের হাসান আদিল প্রমুখ।

 

 

ঢাকা/ জুনেদ আহমদ / এইচ আর