বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ৯ ফাল্গুন ১৪২৪
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

চট্টগ্রামে পাহাড়ধসে প্রাণ গেল ৫ জনের

ডেস্ক রিপোর্ট | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2017-07-21 18:01:18

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলায় পাহাড়ধসে তিন শিশুসহ পাঁচজন নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২০ জুলাই) দিবাগত রাত আনুমানিক সাড়ে তিনটার দিকে বৃষ্টির মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতেরা হলো, বিবি ফাতেমা (৩০), তাঁর ছেলে ইউনুস (১০), ফাতেমার ননদ রাবেয়া (২৫), রাবেয়ার মেয়ে সামিয়া (৭) ও লামিয়া (২)। ঘটনাস্থল থেকে চারজনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে একজন আহত। তিনি ফাতেমার স্বামী মো. রফিক।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাজমুল ইসলাম ভুইয়ার ভাষ্য, সলিমপুর ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি এলাকা জঙ্গল সলিমপুর গ্রামে পাহাড়ধসে তারা নিহত হয়। তিনি জানান, ওই গ্রামের টিলা ও পাহাড়ে ছিন্নমূল লোকজন ঘর বানিয়ে বসবাস করে। সেখানে বিভিন্ন এলাকাকে সমাজ হিসেবে ভাগ করা হয়েছে। ৩ নম্বর সমাজের একটি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ছিন্নমূল বস্তিবাসী সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কাজী মশিউর রহমান বলেন, অতিবৃষ্টির কারণে গতকাল রাত আটটায় মাইকিং করে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা থেকে বাসিন্দাদের নামিয়ে আনা হয়। তাদের সমতলে কয়েকটি ঘরবাড়িতে নেওয়া হয়। কিন্তু রাত ১০টার দিকে অনেক পরিবারের সদস্য না জানিয়ে চলে যায়। তিনি আরও বলেন, ধসের সময় পাহাড়ের একটি অংশ রফিকের ঘরে পড়ে।

সীতাকুণ্ড সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউর রহমান বলেন, পাহাড়ধসের সময় রফিক ও তাঁর বোনের স্বামী কালাম বাড়ি থেকে বের হতে পারেন। কিন্তু তাঁদের পরিবারের সদস্যরা চাপা পড়েন। ছিন্নমূল পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা ও স্থানীয় লোকজন তাঁদের লাশ উদ্ধার করে ফাঁড়িতে রেখেছেন।

গত ১৩ জুন নজিরবিহীন পাহাড়ধসে একমাত্র রাঙামাটিতেই শতাধিক মানুষ মারা যান। আহত হয়েছিলেন অন্তত ৮৮ জন। এ ছাড়া চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় পাহাড়ধসে প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। (প্রথম আলোর সৌজন্যে)

 

 

ঢাকা/ এইচ আর