সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ৬ ফাল্গুন ১৪২৪
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদকে’র জন্য ইবির ১০ শিক্ষার্থীর মনোনয়ন

আতিকুর রহমান অনি | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2017-10-07 22:33:58

শিক্ষাজীবনে কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের জন্য যথাক্রমে ২০১৫ ও ২০১৬ সালের প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদকের ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের দশজন শিক্ষার্থী জন্য চূড়ান্তভাবে মনোনীত হয়েছে। সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃক প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে মনোনীত শিক্ষার্থীদের নাম প্রকাশ করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার অফিস সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদকের জন্য মনোনীত শিক্ষার্থীদের মধ্যে থিওলজি এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ অনুষদভূক্ত আল-কোরআন এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মাহমুদুর রহমান, মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভূক্ত রাষ্ট্রনীতি ও লোকপ্রশাসন বিভাগের ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের মো: হাফিজুল ইসলাম, ব্যবসা প্রশাসন অনুষদভূক্ত হিসাব ও তথ্য প্রযুক্তি বিভাগের ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের শিমুল রায়, আইন ও শরীয়াহ অনুষদভূক্ত আইন বিভাগের ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষের মোছা: রজবা খানম, ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদভূক্ত পরিসংখ্যান বিভাগের ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের সুমন বিশ্বাস।

অপরদিকে, ২০১৬ সালের ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদকে’র জন্য মনোনীতরা হলেন থিওলজি এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ অনুষদভূক্ত আল-হাদিস এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ২০১০-১১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী আতিকুর রহমান, মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভূক্ত আরবী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের ২০১০-১১ শিক্ষাবর্ষের মো: সাইদ আহমেদ, ব্যবসায় অনুষদভূক্ত ফিনান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের মিঠুন বৈরাগী, আইন ও শরীয়াহ অনুষদভূক্ত আইন বিভাগের ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের সোহরাব হোসেন এবং ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদভূক্ত গণিত বিভাগের ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের মো: আব্দুল আলিম।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ বলেন, “চলতি মাসের মাঝামাঝি সময়ে ইউজিসি’র তারিখ নির্ধারণ সাপেক্ষে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে মনোনীতদের পদক প্রদান করা হবে।‘

ট্রেজারার প্রফেসর ড. সেলিম তোহা বলেন, “এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য অনেক বড় পাওয়া। এর মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি বিশ্বের দরবারে উচু হবে এবং নতুনরা এর মাধ্যমে উৎসাহ পাবে।”

 

 

 

ঢাকা/ প্রতিনিধি/ এইচ আর