বুধবার, ২০ জুন ২০১৮, ৫ আষাঢ় ১৪২৫
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেছে ফিলিস্তিনিরা

ডেস্ক রিপোর্ট | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2017-12-08 18:28:51

জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে বুধবার স্বীকৃতি দেয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে বিশ্ব নেতাদের নিন্দা ও সমালোচনার ঝড় উঠছে। আবারো অস্ত্র হাতে তুলে নেওয়ার ঘোষনা দিয়েছে হামাস। বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেছে ফিলিস্তিনি নাগরিকরা।

শুক্রবার তারা বিক্ষোভ দিবসের ডাক দিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে।  ট্রাম্পের এমন স্বীকৃতিকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার ফিলিস্তিনি ও ইসরাইলি বাহিনীর মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। এদিকে এমন উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে ইসরাইল অধিকৃত পশ্চিম তীরে আরো কয়েকশ’ সৈন্য মোতায়েন করেছে।

ইসরাইলি সামরিক বাহিনী জানায়, গাজা সিটিতে এক ভাষণে হামাস নেতা ইসমাইল হানিয়া নতুন করে যুদ্ধের ডাক দিয়েছেন। এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে গাজা উপত্যকার বিভিন্ন এলাকা থেকে গুলির শব্দ শোনা যায়।

গাজা কর্তৃপক্ষ জানায়, ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে জেরুজালেমকে ট্রাম্প স্বীকৃতি দেয়ার প্রতিবাদে গাজার পাশাপাশি পশ্চিম তীরে ব্যাপক বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়। গাজায় বিক্ষোভ সমাবেশে ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে পাঁচ ফিলিস্তিনি নাগরিক আহত হয়েছে।

ফিলিস্তিনি রেডক্রস জানায়, পশ্চিম তীরে বন্দুকের গুলি বা রাবার বুলেটের আগাতে ২২ জন আহত হয়।এদিকে রামাল্লাহ’র প্রবেশ পথের একটি নিরাপত্তা ফাঁড়িতে সমবেত হওয়া বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে ইসরাইলি বাহিনী টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করতে হয়।

টাম্পের এ ঘোষণায় কার্যত হতাশ হয়ে পড়েছে ফিলিস্তিনি জনগণ। জেরুজালেম মুসলমান খৃষ্টান উভয়ের  জন্য পবিত্র স্থান। এককভাবে জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণাকে সমর্থন  দিয়ে পশ্চিম এশিয়ার এ অঞ্চলের শান্তি স্থাপন প্রক্রিয়ার উপর কুঠারাঘাত করলেন ট্রাম্প।

বিশ্ব কূটনীতিকে অবজ্ঞা করে বৃটেন ফ্রান্স ইউএন ইইউ’র সাবধানবাণী  সত্ত্বেও ট্রাম্প এককভাবে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে ঘোষণার পক্ষে দাঁড়ালেন।

মার্কিন ভাইন প্রেসিডেন্ট পেন্সকে বৃহস্পতিবার ফিলিস্তিনে স্বাগত জানানো হয়নি। হোয়াইট হাউসের এ সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ ফিলিস্তিনি প্রশাসন। এর প্রেক্ষিতে পরবর্তীতে পেন্স আব্বাস মিটিংও বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মার্কিন প্রশাসন।

 

 

 

 

ঢাকা/এআর