বৃহস্পতিবার, ২৪ মে ২০১৮, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

নোবিপ্রবিতে বিজয় দিবস পালিত

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2017-12-17 18:29:34

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) বর্ণাঢ্য আয়োজনে ৪৬তম মহান বিজয় দিবস ২০১৭ উদযাপন করা হয়েছে।

শনিবার (১৬ ডিসেম্বর ) বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ, ইনস্টিটিউট ও ছাত্রসংগঠনসমূহ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও নানা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। দিবসটি উদযাপনে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করে।

এদিন সকাল ৯টায় নোবিপ্রবি পরিবারে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের অংশগ্রহণে বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলচত্ত্বরে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি ভাস্কর্যের সামনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও সমবেত জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করা হয়। পরে উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামানের নেতৃত্বে সকলের অংশগ্রহণে বিজয় র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালিটি প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে শুরু হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও মূলফটকে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শেষ হয়।

পরে বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানবৃন্দ, হলের প্রভোস্টবৃন্দ, শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ ও স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের আহ্বায়কবৃন্দ, নোবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ ও কর্মচারীবৃন্দ স্ব স্ব সংগঠনের পক্ষ থেকে শহিদ মিনার ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়।

এরপর বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মোহাম্মদ ইদ্রিছ অডিটোরিয়ামে বিজয় দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় উপাচার্য প্রফেসর ড. এম অহিদুজ্জামান বলেন, ইতিহাসের মহান নায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, যার যোগ্য নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধে বিজয় অর্জনের মাধ্যমে আমারা স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি। এসময় উপাচার্য ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের অবদান কৃতজ্ঞতা চিত্তে স্মরণ করেন।

এছাড়া তিনি ১৬ ডিসেম্বর বিজয় লাভের পেছনে ৩০ লাখ শহীদের আত্মদানকে গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে বলেন, এ জনপদের স্বাধীনতা অর্জনে যারা শহিদ হয়েছেন তাদের ওই ঋণ পরিশোধে সকলকে দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ গড়ার কাজে মনোযোগী হতে হবে। তাহলেই এ বিজয় সার্থক হবে। বিজয়ের ৪৬ বছরে আজ একটি আত্মমর্যাদাশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশ এগিয়ে চলছে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, নোবিপ্রবি হবে নকল, মাদক ও ড্রাগমুক্ত একটি বিশ্বমানের বিশ্ববিদ্যালয়। তাই ছাত্র-শিক্ষক সকলকে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত, সর্বোপরি এ দেশকে সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করার আহ্বান জানান।

ছাত্র নির্দেশনা পরিচালক আফসানা মৌসুমীর সঞ্চালনায় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মোহাম্মদ ইউছুফ মিঞা ও রেজিস্ট্রার প্রফেসর মো. মমিনুল হক। অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি তারেক মো. রাশেদ উদ্দিন, নোবিপ্রবি ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম রবিন ও সাধারণ সম্পাদক এস এম ধ্রুব। এসময় অনুষদসমূহের ডিন, ইনস্টিটিউট ও দপ্তরসমূহের পরিচালক, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানবৃন্দ, হলের প্রভোস্টবৃন্দ, প্রক্টর, শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ, বঙ্গবন্ধু পরিষদ ও স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের আহ্বায়কবৃন্দ, নোবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ এবং ছাত্র-শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

 

ঢাকা/আমজাদ রানা/একে