শনিবার, ২৬ মে ২০১৮, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

চবি ছাত্রলীগের অবরোধে অচল ক্যাম্পাস

চবি প্রতিনিধি | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2017-12-19 11:51:14

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সাবেক সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেনের মুক্তির দাবিতে অবরোধ করেছে ছাত্রলীগের একাংশ।এর ফলে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে ক্যাম্পাস।

মঙ্গলবার সকালে আবারো মূল ফটকে তালা দেয় অবরোধকারীরা। অবরোধের কর্মসূচি হিসেবে শিক্ষক বাস এবং শাটল ট্রেন আটকে দেয় তারা। এতে ক্যাম্পাসে কোন ধরনের শিক্ষক বাস, স্টাফ বাস এবং শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের প্রধান বাহন শাটল ট্রেন আসে নি।

সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বটতলী স্টেশন থেকে ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্য ছেড়ে আসে ট্রেনটি। কিন্তু ৭টা ৪০ মিনিটে ট্রেনটি ঝাউতলা স্টেশনে এলে তিনটি বগির হোস পাইপ কেটে দেয় ছাত্রলীগের একাংশের নেতাকর্মীরা।

এদিকে শাটল ট্রেন চলাচল না করায় দূর্ভোগে পড়েছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ২০৩ নং কোর্স পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল মঙ্গলবার সকাল ১০ টা থেকে। কিন্তু শিক্ষক বাস না চলায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় নি।

এ ব্যাপারে চবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সভাপতি সাবিনা নার্গিস লিপি জানান, শিক্ষক বাস ও শাটল ট্রেন না চলায় শুধু ২০৩ নং কোর্সের পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করা হয়।

এছাড়া চবির যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় নি।

এদিকে সকাল সাড়ে ৮ টায় জিরু পয়েন্টের সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করা হয়।

শাটল ট্রেন চলাচলের ব্যাপারে ষোলশহর স্টেশন মাস্টার মো. শাহাবুদ্দিন জানান, ঝাউতলা এবং বটতলীতে ট্রেন আটকে দেয় ছাত্ররা। তাই শাটল চলছে না। পরিস্তিতি বুঝে এবং উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হবে।

উল্লেখ্য, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম-সম্পাদক দিয়াজ ইরফান চৌধুরী হত্যা মামলায় সাবেক সহকারী প্রক্টর ও সমাজতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষক আনোয়ার হোসেন চৌধুরীকে সোমবার কারগারে পাঠিয়েছেন আদালত। তার মুক্তির দাবিতে মঙ্গলবার থেকে লাগাতার অবরোধের ডাক দিয়েছে চবি ছাত্রলীগ। এ অংশটি নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত। এর নেতৃত্বে রয়েছেন ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির সভাপতি ও দিয়াজ হত্যা মামলার অন্যতম আসামি আলমগীর টিপু।

 

 

 

ঢাক/এম এ কাইয়ূম/এআই