শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮, ৮ আষাঢ় ১৪২৫
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

বিজয়ের মাসে ইবির ‘স্বপ্ন’ সাহিত্য পর্ষদের দেয়ালিকা প্রকাশ

ইবি প্রতিনিধি | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2018-01-01 17:36:04

বিজয়ের মাসের শেষ দিনে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) সাহিত্য বিষয়ক সংগঠন ‘স্বপ্ন’ সাহিত্য পর্ষদের আয়োজনে ‘একটি মানচিত্রের ইতিহাস’ শীর্ষক দেয়ালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

রোবাবর বেলা সাড়ে ১২ টায় টিএসসিসির করিডোরে আনুষ্ঠানিকভাবে এটি উন্মোচন করা হয়।

বিজয়ের মাস উপলক্ষে আয়োজিত এই দেয়াল লিখনে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে বাংলাদেশের মানচিত্র অর্জনের সংক্ষিপ্ত ও পূর্ণ ইতিহাস। এতে বাংলাদেশের ছায়া মানচিত্রের উপর বিচিত্র রঙের ছোট্ট ছোট্ট কাগজে ১৯৪৭ সালের দেশ বিভাগ থেকে শুরু করে ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে চূড়ান্ত বিজয় অর্জনের অভ্যন্তরে সংঘটিত মোট ১৯টি প্রেক্ষাপট তুলে ধরা হয়েছে।

দেয়ালিকা প্রকাশ অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবর রহমান, টিএসসিসির পরিচালক ড. মোঃ বাকী বিল্লাহ বিকুল, জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোস্ট ড. শাহাদৎ হোসেন আজাদ এবং সহকারী প্রক্টর ড. মোঃ সাজ্জাদ হোসেন, ইবি প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসাইন রুদ্র প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

 `একটি মানচিত্রের ইতিহাস’ শীর্ষক দেয়ালিকাটির বর্ণবিন্যাস করেন ‘স্বপ্ন’ সাহিত্য পর্ষদের কোষাধ্যক্ষ কল্পনা ও দপ্তর সম্পাদক আইনুন নাহার। এছাড়াও সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন কার্যনির্বাহী সদস্য আবু নাঈম, এনামুল হক, সাধারণ সদস্য সাইফুল ইসলাম, মিজানুর রহমান ও সোহেল রানা।

দেয়ালিকা প্রকাশ প্রসঙ্গে ‘স্বপ্ন’ সাহিত্য পর্ষদের সাধারণ সম্পাদক  আতিকুর রহমান বলেন, ‘প্রতিষ্ঠার পর থেকেই ‘স্বপ্ন’ সাহিত্য পর্ষদ বিশুদ্ধ সাহিত্য চর্চার পাশাপাশি ও বাংলাদেশের ইতিহাস ও ঐতিহ্য নিয়ে কাজ করে আসছে। তারই অংশ হিসেবে আজকের এই ‘একটি মানচিত্রের ইতিহাস’ দেয়ালিকার আয়োজন।’

পর্ষদের সভাপতি জি কে সাদিক বলেন, ‘স্বপ্ন সাহিত্য পর্ষদ তার কার্যক্রমের মাধ্যমে সৃজনশীলতা বিকাশে সচেষ্ট। এরই ধারাবাহিকতায় আজকের এই উদ্যোগ।’

দেয়ালিকার উদ্বোধনকালে প্রক্টর প্রফেসর ড. মাহবুবর রহমান বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়কে পরিপূর্ণ প্রগতিশীল ও শিল্প সংস্কৃতিমনা বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে গড়তে বর্তমান প্রশাসন বদ্ধ পরিকর। আর এ কাজে স্বপ্ন সাহিত্য পর্ষদ খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। আমি স্বপ্ন সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

 

 

 

 

 

ঢাকা/অনি আতিকুর রহমান/একে