শনিবার, ২৬ মে ২০১৮, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

কুবিতে যৌন নিপীড়ন প্রতিরোধ সেল গঠন

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2018-03-06 23:00:08

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) নৃবিজ্ঞান বিভাগের এক ছাত্রীকে প্রকাশ্যে টাকার বিনিময়ে যৌন হয়রানির অভিযোগ আমলে নিয়ে বিশ^বিদ্যালয়ের এ সম্পর্কিত বিচারালয় যৌন নিপীড়ন প্রতিরোধকল্পে ‘অভিযোগ কমিটি’ (যৌন নিপীড়ন প্রতিরোধ সেল) পুনর্গঠন করা হয়েছে।

এর আগে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ভুক্তভোগী ঐ ছাত্রী বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর বরাবর এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগ প্রদানের ১৬ দিন পর সোমবার বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নির্দেশক্রমে এ সেল পুনর্গঠন করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (চলতি দায়িত্ব) ড. মো: আবু তাহের। ইতিপূর্বে এই সেলটি নামমাত্র থাকলেও কার্যত ছিলো অচল।

নবগঠিত এই সেলের ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটিতে রয়েছেন- রেজিস্ট্রার, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (আহ্বায়ক); প্রভোস্ট, নওয়াব ফয়জুন্নেসা চৌধুরানী হল, কুমিল্লা বিশ^বিদ্যালয় (সদস্য); দিলনাশিঁ মোহসেন, প্রধান নির্বাহী, দুঃস্থ মা ও শিশু কল্যাণ ফাউন্ডেশন, কুমিল্লা (সদস্য); পাপড়ী বসু, সভাপতি, নারী দীপিতা, কুমিল্লা (সদস্য) ও প্রক্টর, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (সদস্য-সচিব)।

এদিকে ছাত্রীকে যৌন হয়রানির বিচার প্রসঙ্গে জানতে চাইলে কমিটির আহ্বায়ক, বিশ^বিদ্যালয় রেজিস্ট্রার (চলতি দায়িত্ব) ড. মো: আবু তাহের জানান, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর কর্তৃক এ সম্পর্কিত লিখিত প্রতিবেদন আমরা হাতে পেয়েছি। বিষয়টি নিয়ে আমরা কাজ করছি।’ অভিযোগ কমিটি কবে নাগাদ তদন্তের কাজ শেষ করবে এমন প্রশ্ন এড়িয়ে গিয়ে তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে নির্দিষ্ট করে বলা যাচ্ছে না।’

প্রসঙ্গত, গত ৮ ফেব্রুয়ারি নৃবিজ্ঞান বিভাগের  স্নাতক চূড়ান্ত বর্ষের শিক্ষার্থী তাহমীদ পলাশ নিজ বিভাগের এক ছাত্রীকে প্রকাশ্য দিবালোকে টাকার বিনিময়ে অবৈধ সম্পর্কে জড়ানোর কু-প্রস্তাব দেন বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী ঐ ছাত্রী। এ বিষয়ে তিনি গত ১৩ ফেব্রুয়ারি নিজ বিভাগীয় প্রধান ও ১৮ ফেব্রুয়ারি বিশ^বিদ্যালয় প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ দিলেও এখনও পর্যন্ত ঘটনার দৃশ্যমান কোনও বিচার হয়নি।

 

 

 

ঢাকা/ আমার ক্যাম্পাস/ মাহফুজ কিশোর/ এ আর