বুধবার, ২০ জুন ২০১৮, ৫ আষাঢ় ১৪২৫
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

ইবিতে বাংলা বিভাগের আয়োজনে ‘বসন্ত উৎসব’ উদযাপন

ইবি প্রতিনিধি | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2018-03-27 19:44:21

‘আজ দক্ষিন-দুয়ার খোলা’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘বসন্ত উৎসব’ উদযাপিত হয়েছে। বাংলা বিভাগের আয়োজনে মঙ্গলবার সকাল ১১টায় নবনির্মিত ‘বাংলা মঞ্চে’ এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. গৌতম কুমার দাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কোষাধ্যাক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা।

জানা যায়, আয়োজনটি উপলক্ষে এদিন সকাল ১১টায় অনুষদ ভবনের সামনে হতে বাংলা বিভাগীয় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিয়ে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে অনুষদ ভবন সংলগ্ন ‘বাংলা মঞ্চে’ এক আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে মিলিত হয়। আলোচনাসভা শেষে সাংস্কৃতিক পর্বে বিভাগীয় শিল্পীদের অংশ্রগ্রহণে আবৃতি, নৃত্য, সঙ্গীত ও নাটক মঞ্চস্থ হয়।

আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশিদ আসকারী বলেন, ‘বসন্ত উৎসব হচ্ছে আমাদের বাঙালী সংস্কৃতির প্রাণের উৎসব। বাংলা বিভাগ বারা বার আমাদের লোকজ ও দেশীয় সাংস্কৃতিকে সবার সামনে তুলে ধরে এবং এইসব উৎসবের সাথে আমাদের পরিচিতি ঘটায়।’

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ‘বসন্ত উৎসব’ অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. সরওয়ার মুর্শেদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন ছাত্র-উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মোঃ রেজওয়ানুল হক, ফোকলোর বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মোহাঃ সাইদুর রহমান, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. আব্দুল আলীম, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. শেখ রেজাউল করিম, অধ্যাপক ড. মোঃ রবিউল হোসেন, অধ্যাপক ড. মনজুর রহমান, ড. মোঃ রশিদুজ্জামান, ড. সাইফুজ জামান, ড. ইয়াসমিন আরা সাথী, রওশন আরা সেতু, ফৌজিয়া খাতুন প্রমুখ।

বসন্ত উৎসব অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও টিএসসিসির পরিচালক ড. বাকী বিল্লাহ বিকুল ও তিয়াশা চাকমা।

উল্লেখ্য, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগ প্রতিবছর ১লা ফাল্গুন জমকালো ‘বসন্ত বরণ’ উৎসব পালন করে। কিন্তু এবারের ‘১লা ফাল্গুনে’ বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্ধারিত শীতকালীন ছুটি পড়ে যাওয়ায় তা পিছিয়ে আজ অনুষ্ঠিত হলো।

 

 

 

ঢাকা/ আমার ক্যাম্পাস/ অনি আতিকুর রহমান/ এ আর