শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮, ৮ আষাঢ় ১৪২৫
গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ

কেন ভর্তি হবেন রেসিডেন্সিয়াল ল্যাবরেটরি কলেজে

মন্ডল মোহাম্মদ আরিফ | আমারক্যাম্পাস২৪.কম

Published: 2018-05-22 12:03:20

যাত্রা শুরু সেই ২০০৯ সালে। তার পর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয় নি। ধাপে ধাপে উন্নতির সিড়ি বেয়ে রেসিডেন্সিয়াল ল্যাবরেটরি কলেজ আজ সাফল্যের স্বর্ণ শিখরে। এইচএসসিতে শতভাগ পাশের সাথে কলেজটি স্থান করে নিয়েছে দেশ সেরা কলেজগুলোর তালিকায়। মাত্র দুই বছরের মাথায় এইচএসসি’র ফলাফলে রীতিমত সকলকে তাক লাগিয়ে দেয় কলেজের শিক্ষার্থীরা। ২০১১ সালে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের শত শত কলেজকে পিছনে ফেলে এইচএসসি’র ফলাফলে সেরা ১৯তম হওয়ার গৌরব অর্জন করে কলেজটি। অধ্যবদি সেরা কলেজের তালিকায় থাকার পাশাপাশি কলেজটির রয়েছে এইচএসসিতে শতভাগ পাশ ও জিপিএ ৫ পাওয়ার সাফল্যগাথা গল্প।

এত অল্প সময়ে কিভাবে এত সাফল্য অর্জন করা সম্ভব? জানতে চাইলে কলেজের শিক্ষকরা জানান, ‘সঠিক ও সৃজনশীল পদ্ধতিতে নিয়োমিত পাঠদান। অভিভাবকদের নিয়ে নিয়োমিত আলোচনা সভা। সুপরিকল্পিত পাঠদান পদ্ধতি  এবং অভিঙ্গ ও দক্ষ শিক্ষকমন্ডলী।’

শিক্ষকরা আরো জানান, ‘আমাদের কোন শিক্ষার্থীকে আলাদা করে প্রাইভেট পড়তে হয় না। ক্লাশের পড়া ক্লাশেই বুঝে নেয়া হয়। প্রতিদিন পূর্বের ক্লাশের উপর ক্লাশ টেস্ট, প্রয়োজনবোধে শিক্ষার্থীদের হ্যান্ড নোট সরবরাহ করা হয়ে থাকে।  প্রতি সপ্তাহের পাঠের নেয়া হয় একটি করে বিশেষ পরীক্ষা।’

সৃজনশীল পদ্ধতিতে পাঠদান

কলেজের শিক্ষকমন্ডলী দক্ষ ও অভিঙ্গ হওয়ায় খুব সহজভাবে সৃজনশীল পদ্ধতিতে পাঠদান করা হয়। অধিক জটিল ও কঠিন বিষয়গুলো মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে দেন  শিক্ষকরা। ক্লাশ পর্যবেক্ষনের জন্য রয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা।

সমৃদ্ধ লাইব্রেরী ও ল্যাব

শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে সমৃদ্ধ লাইব্রেরী ও বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে ল্যাব। বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের হাতেকলমে ল্যাবে শিক্ষা দেয়া হয়। বিজ্ঞান দ্বাদশ শ্রেণীর এক শিক্ষার্থী জানান, ‘আমরা ল্যাবে কাজ করার সুযোগ পাই। শিক্ষকরা এ ক্ষেত্রে আমাদের সহযোগিতা করে থাকেন।

সমৃদ্ধ কম্পিউটার ল্যাব

কলেজের রয়েছে সমৃদ্ধ কম্পিউটার ল্যাব। শিক্ষার্থীরা খুব সহজেই হাতে কলমে কম্পিউটার শিক্ষা নিতে পারে। শিক্ষার্থীরা জানান, ‘আমাদের আইসিটি স্যার অনেক সহজে আমাদের শিক্ষা দিয়ে থাকেন। নিয়োমিত ক্লাশ ও ব্যবহারিক পরীক্ষা নেয়া হয়। তাছাড়া যে কোন সমস্যায় আমাদের শিক্ষকরা আমাদের সহযোগিতা করে থাকেন।

আবাসিক সুবিধা

কলেজটির রয়েছে নিজস্ব আবাসিক সুবিধা। ছেলে ও মেয়েদের জন্য রয়েছে আলাদা আলাদা হোস্টেল। হোস্টেলে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎসহ সর্বাধুনিক সেবা প্রদান করা হয় শিক্ষার্থীদের।

রাজধানীর খিলখেতের নিকুঞ্জ-২ এ সুনামধন্য এ কলেজে ভর্তির সাথে সাথে শিক্ষার্থীদের কলেজ ব্যাগ, ড্রেস, টাইসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কলেজ থেকেই সরবরাহ করা হয়ে থাকে। চিত্রবিনোদনের জন্য আয়োজন করা হয় বার্ষিক শিক্ষা সফর ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতা।

বিজ্ঞান দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী অনন্যা জানান, ‘রেসিডেন্সিয়াল ল্যাবরেটরি কলেজে ভর্তি হয়ে আমি আমার বেস্ট সময়টুকু পেয়েছি। কলেজের শিক্ষকমন্ডলী আমাদের সাথে বন্ধুসুলভ আচরণ করেন। আমার ইচ্ছা আমি মেডিকেলে পড়বো। ২০১৮ সালে এসএসসিতে উর্ত্তীণ ভাইবোনদের বলবো তোমাদেরও যদি আমার মত ইচ্ছা থাকে তাহলে এই কলেজে ভর্তি হতে পারো।’

কথা হলে কলেজের অধ্যক্ষ জনাব বিভাষ ঘটক জানান, ‘শিক্ষক-শিক্ষার্থী উভয়ের পরিশ্রমেই একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সফলতা নির্ভর করে। আমাদের কলেজের সকল শিক্ষকমন্ডলীই দক্ষ ও অভিঙ্গ। তারা শিক্ষার্থীদের সাথে সবসময় বন্ধুসুলভ আচরণ করে থাকেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘সম্পূর্ণ সৃজনশীল পদ্ধতিতে পাঠদানের পাশাপাশি অভিভাবকদের সাথে নিয়োমিত বৈঠক করা হয়। সকলের পরামশেই রেসিডেন্সিয়াল ল্যাবরেটরি কলেজ শুধু প্রতিষ্ঠান নয় এটি একটি পরিবারও। কারণ এখানে সকলের পরমর্শকে সমানভাবে বিবেচনা করা হয়।

২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির কথা জানিয়ে অধ্যক্ষ বলেন, ‘এ বছর একাদ্বশ শ্রেণীতে অনেক শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছে। এখনো ভর্তি প্রক্রিয়া চলছে। বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসা শিক্ষায় শিক্ষার্থী ভর্তি করানো হচ্ছে। সম্প্রতি আমাদের কলেজ নিয়ে যে মিথ্য সংবাদ প্রচারিত হয়েছিল তার জন্য প্রচারকারীরা ভুল স্বীকার করে দু:খ প্রকাশ করেছে। তাই শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।’

 

 

ঢাকা/ আমার ক্যাম্পাস/ এইচ আর/ এ এম