1. amarcampus24@gmail.com : admin2020 :
শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন

অবরোধের হুমকি ট্রাম্পের, চীনের বিরোধিতা

আমার ক্যাম্পাস ডেস্ক ::
  • আপডেট টাইম :: মঙ্গলবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২০

ইরাক থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের প্রস্তাব পার্লামেন্টে এ পাস হওয়ার পর ইরাকের বিরুদ্ধে কঠোর অবরোধ হুমকি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ওদিকে মার্কিন কোন স্বার্থের ওপর ইরান হামলা চালালে তার কঠোর প্রতিশোধ নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি আগেই। রোববার (৫ জানুয়ারি) দিনশেষে ইরান ও ইরাককে উদ্দেশ্য করে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ওই সতর্কবার্তা দেন। কিন্তু এর বিরোধিতা করেছে চীন। তারা বলেছে, হুমকি হিসেবে এ অবরোধ ব্যবহারের বিরুদ্ধে চীন।

ইরান এখন তার পারমাণবিক সীমা অতিক্রমের হুমকি দিয়েছে। ফলে পুরো মধ্যপ্রাচ্য এখন যেন একটি বারুদের বাক্সে পরিণত হয়েছে। এতে সামান্য একটু ভুল-বিচ্যুতিতে যুদ্ধ শুরু হয়ে যেতে পারে। আর এ থেকে এই যুদ্ধ বিস্তৃত হতে পারে বিশ্বজুড়ে। যুদ্ধের এমন আশঙ্কায় সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রড্রিগো দুতের্তে। ইরাক ও ইরানে কর্মরত রয়েছে ফিলিপাইনের ৭ হাজার নাগরিক। তাদেরকে উদ্ধারে নোটিশ মোতায়েন করার জন্য বিমান ও জাহাজ প্রস্তুত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। মধ্যপ্রাচ্যের এ পরিস্থিতি যদি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় তাহলে তাদেরকে দ্রুত উদ্ধারে এমন নির্দেশ দিয়েছেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও এপিকে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে অনলাইন আরব নিউজ।

ইরাকে রয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রায় ১৬০০ কর্মী। তাদের বেশির ভাগই কাজ করেন অবকাঠামো নির্মাণ খাতে। তাদের নিরাপত্তা বৃদ্ধির জন্য কাজ করছে বলে গত সপ্তাহে জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। অন্যদিকে এখনো ওই অঞ্চল থেকে নাগরিকদের উদ্ধারের কোনো পরিকল্পনা নেয়নি ভারত। এ কথা জানিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভিশ কুমার। সামরিক হস্তক্ষেপের মাধ্যমে মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনাকর এ অবস্থা সৃষ্টির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনা করেছে চীন। একই সঙ্গে সব পক্ষকে শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষায় যুদ্ধ থেকে বিরত থাকার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে। এক ব্রিফিংয়ে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গেং শুয়াং বলেছেন, নিজেদের শক্তির অপচয় না করতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বেইজিং। ইরাকের বিরুদ্ধে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অবরোধ দেয়ার বিষয়েও মন্তব্য করেছেন গেং শুয়াং। তিনি বলেছেন, হুমকি হিসেবে খেয়ালি অবরোধ ব্যবহারের বিরুদ্ধে চীন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর