1. amarcampus24@gmail.com : admin2020 :
শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২০, ০৭:৪৬ পূর্বাহ্ন

বিনামূল্যের সরকারি বই টাকা ছাড়া মিলছে না চরফ্যাসনে

আমারক্যাম্পাস ২৪ ডটকম/আর এম
  • আপডেট টাইম :: শনিবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২০
এভাবেই পড়ে আছে স্কুলের মধ্যে বই

ভোলার চরফ্যাসনে টাকা ছাড়া মিলছে না বিনামূল্যের সরকারি বই। উপজেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে বিনামূল্যের এসব বই পেতে শিক্ষার্থীদের গুনতে হচ্ছে ১০০ থেকে দেড়শ’ টাকা। ভর্তির ফি, বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এবং মিলাদ খরচের কথা বলে টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে কতিপয় শিক্ষকের বিরুদ্ধে। জানা গেছে, বছরের প্রথম মাসেই বই দেওয়ার কথা। চরফ্যাসন উপজেলার বেশির ভাগ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গতকাল সোমবার পর্যন্ত বেশির ভাগ বই বিতরণ করা হয়নি। শিশু শিক্ষার্থীরা টাকা জমা দিয়ে বই নিচ্ছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, গতকাল সোমবার উপজেলার বেশ কিছু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে টাকা দিতে না পারায় শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয় থেকে বই ছাড়াই বাড়ি ফিরছে। এ সময় দেখা গেছে, এসব বিদ্যালয়ের বেশিরভাগ বই এখনও বিতরণ করা হয়নি। অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, শিক্ষকরা টাকা ছারা বই দিচ্ছেনা। সেসন ফি ও ভর্তির ফির অজুহাত দেখিয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে বই দেওয়া হচ্ছে। অসহায় পরিবারের শিশুরা পর্যায়ক্রমে টাকা দিয়ে বই নিচ্ছে। তাই একই সঙ্গে সব শিশু নতুন বই নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারছে না। নাম ওঠেনি খাতায়। একটি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানান, সরকারিভাবে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার জন্য স্কুলপ্রতি এক হাজার এবং বই পরিবহনের জন্য ৪০০ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। সীমিত এই অর্থে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা কিংবা বই পরিবহন সম্ভব হয় না। পাশাপাশি ছবকের মিলাদের জন্য কোনো বরাদ্দ নেই। এসব খরচ জোগান দেওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের থেকে কিছু টাকা নেওয়া হচ্ছে। তবে মায়া সরকারি প্রাথিমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুন্নাহার বেগম বলেন, আমার বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ সঠিক নয়।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার তৃষিত কুমার চৌধুরী জানান, মায়া প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং দক্ষিণ মায়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই দিয়ে টাকা নেওয়ার বিষয়ে অভিভাবকরা মোবাইল ফোনে অভিযোগ করেছেন। অভিযোগটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ইউএনও রুহুল আমিন জানান, বই দিয়ে টাকা নেওয়ার বিষয়ে বিচ্ছিন্নভাবে কিছু অভিযোগ পেয়েছি। দোষীদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

ঢাকা/আমারক্যাম্পাস/আর এম

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর